ওয়াশিং মেশিন বন্ধ থাকলেও হতে পারে বিস্ফোরণ! এই ভুলগুলো করছেন না তো? জানুন

ওয়াশিং মেশিন বন্ধ থাকলেও হতে পারে বিস্ফোরণ! এই ভুলগুলো করছেন না তো? জানুন

Washing Machine Blast: বর্তমানে উত্তর ভারতে প্রচণ্ড তাপপ্রবাহ চলছে। নয়াদিল্লিতে তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি চলে গিয়েছে। প্রখর রোদের কারণে এসি, কুলার, ফ্যানের মতো একটানা বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি চালানোয় আগুন লাগার ঝুঁকি বেড়েছে। যাঁরা নিজেদের ওয়াশিং মেশিন ভুল জায়গায় রাখেন তাঁদেরও বিস্ফোরণের ঝুঁকি বেড়ে যায়। এমনই এক ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে গাজিয়াবাদে। সুইচ অফ থাকা অবস্থাতেও ওয়াশিং মেশিনে আগুন লেগে একটি বাড়ি আগুনে পুড়ে যায়। সৌভাগ্যের বিষয় আশেপাশের লোকজন সময়মতো আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন, তাই বড় ধরনের দুর্ঘটনা এড়ানো গিয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে অফিসার সিটি-২, সোসাইটি অফ রাজনগর এক্সটেনশন, গাজিয়াবাদে। এখানে একটি ফ্ল্যাটের বারান্দায় রাখা একটি ওয়াশিং মেশিনে আগুন ধরে যায়। বারান্দায় আগুন জ্বলতে দেখেছেন কয়েকজন। এরপর অনেক লোকজন জড়ো হয়ে ফ্ল্যাটে পৌঁছে আগুন নেভান।

কড়া রোদে ওয়াশিং মেশিন রাখা উচিত নয়

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গরমে ওয়াশিং মেশিন এমন জায়গায় রাখা উচিত নয় যেখানে কড়া রোদ থাকে। ওয়াশিং মেশিনের মোটরে তরল তেল থাকে। যদি এটি উচ্চ তাপমাত্রায় পৌঁছায় তবে এতে আগুন ধরতে পারে। এছাড়া সূর্যের আলোতে রাখা অবস্থায় মেশিনের সুইচ চালু থাকলে আগুন লাগার আশঙ্কাও বেড়ে যায়। গাজিয়াবাদে আগুন লেগেছে কারণ মেশিনটি রোদে রাখা হয়েছিল। যদি মেশিনটিকে সূর্যের আলোতে রাখা ছাড়া উপায় না থাকে, তাহলে একটি মোটা কাপড় দিয়ে ঢেকে সুইচটি বন্ধ রাখতে হবে।

এসিতেও আগুন লাগতে পারে

ইন্দিরাপুরমের শক্তিখণ্ডে অবস্থিত একটি ফ্ল্যাটে লাগানো একটি স্প্লিট এসিতে আগুন লেগে যায়। এই কারণে ঘরেও আগুন ধরে যায়। পুলিশ ও ফায়ার ব্রিগেডের দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভায়। দুর্ঘটনার সময় এসি চলছিল। বেশিরভাগ বাড়িতেই এখন স্প্লিট এসি রয়েছে, যার একটি অংশ বাড়ির বাইরে থাকে যা গরম বাতাস বাইরে বের করে দেয়। যদি সেই অংশটি প্রবল সূর্যালোকের সংস্পর্শে আসে তবে আগুন লাগার ঝুঁকি বাড়তে পারে।

একটানা কয়েক ঘণ্টা চললেও শর্ট সার্কিটের কারণে তাপ বা আগুনের কারণে এসি কম্প্রেসার ফেটে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই উচ্চ তাপমাত্রায় একটানা দুই ঘণ্টার বেশি এসি চালানো উচিত নয়।

(Feed Source: news18.com)