টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার-৮ রেস থেকে ছিটকে ওমান: স্কটল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ইংল্যান্ডের ঝামেলা বাড়ল

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার-৮ রেস থেকে ছিটকে ওমান: স্কটল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ইংল্যান্ডের ঝামেলা বাড়ল

বিশ্বকাপে সুপার-৮-এর রেস থেকে বাদ পড়েছে ওমান। গ্রুপ পর্বে প্রথম তিন ম্যাচেই হেরেছে দলটি। একই সঙ্গে ৪ জয় ও ৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে উঠেছে স্কটল্যান্ড। ওমানের বিপক্ষে স্কটল্যান্ডের জয় ইংল্যান্ডের সুপার-৮ জায়গা বিপদে ফেলে দিয়েছে।

বিশ্বকাপের ২০তম ম্যাচে অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ড স্টেডিয়ামে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ওমানের ম্যাচ খেলা হয়। রবিবার রাতে ওমান টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়ে 20 ওভারে 7 উইকেটে 150 রান করে। জবাবে স্কটল্যান্ড ১৩.১ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্য পায়।

এক নজরে পয়েন্ট টেবিল…

প্রতিটি গ্রুপের শুধুমাত্র শীর্ষ-২ টি দলই পরবর্তী পর্যায়ে অর্থাৎ সুপার-৮-এ প্রবেশ করবে। এক নম্বরে এসেছে স্কটল্যান্ড। তার শেষ ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। এই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া জিতলে তাদের জায়গা নিশ্চিত হয়ে যাবে। একই সঙ্গে স্কটল্যান্ড হারলেও তার সম্ভাবনা নির্ভর করবে ইংল্যান্ডের ওপর। স্কটল্যান্ড নিরাপদে থাকতে ওমানের বিপক্ষে ১৩ ওভারে বড় জয় পেয়েছে।

ইংল্যান্ড খেলেছে ২টি ম্যাচ। একটি ড্র এবং একটি হেরেছে। এ নিয়ে দলের ১ পয়েন্ট। পরের দুই ম্যাচ জিতলেও স্কটল্যান্ডের সমান ৫ পয়েন্ট থাকবে দলটির। অস্ট্রেলিয়া যদি স্কটল্যান্ডকে হারায় তবে ইংল্যান্ডকে বড় ব্যবধানে দুটি ম্যাচই জিততে হবে।

ওমানের ইনিংস: পাওয়ারপ্লেতে দুর্দান্ত খেলা, মিডল অর্ডার হতাশ
ওমানের হয়ে ওপেন করেন প্রতীক আথাওয়ালে ও নাসিম খুশি। প্রথম তিন ওভারে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে দলটি। তবে তৃতীয় ওভারের পঞ্চম বলে ১০ রানে উইকেট তুলে দেন নাসিম খুশি।

এরপর একপ্রান্তে দৃঢ় অবস্থানে থাকা প্রতীক এবং অপর প্রান্তে ওমানের উইকেট পড়তে থাকে। ক্যাপ্টেন আকিব ইলিয়াস ১৬ রান করে আউট হন, জিশান মাকসুদ ৩ রান করে, খালিদ কাইল ৫ রান করে। প্রতীকও 16তম ওভারে 54 রান করার পর আউট হন।

অয়ন খান এসে দলকে শক্তিশালী করেছেন। অপরাজিত থেকে তিনি 41 রান করেন। ৩ রান করার পরও তার সঙ্গে মাঠে থাকেন শাকিল আহমেদ।

স্কটল্যান্ডের দুর্দান্ত বোলিং
স্কটল্যান্ডের সব বোলারই দুর্দান্ত বোলিং করেছে। সাফিয়ান শরীফ নেন ২ উইকেট। যেখানে মার্ক ওয়াট, ব্র্যাড হুইল, ক্রিস সোল এবং ক্রিস গ্রিভস 1-1 সাফল্য পেয়েছেন।

স্কটল্যান্ডের ইনিংস: দুর্দান্ত ব্যাটিং, মুন্সে-ম্যাকমুলেন দ্রুত লক্ষ্যে পৌঁছেছেন
১৫১ রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো করেছিল স্কটল্যান্ড। পাওয়ারপ্লেতে নির্ধারিত 6 ওভারে 1 উইকেট হারিয়ে 50 রান করে দল। জর্জ মুন্সে ২০ বলে ৪১ রান করেন। প্রথম উইকেটের পর ব্যাট করতে আসা ব্র্যান্ডন ম্যাকমুলেন বিস্ফোরক ইনিংস খেলে ম্যাচ জিতে নেন। ৩১ বলে ৬১ রান করেন তিনি। ম্যাকমুলেন ইনিংসে মারেন ৯টি চার ও ২টি ছক্কা।

ওমানের হয়ে ১-১ উইকেট পান বিলাল খান, আকিব ইলিয়াস ও মেহরান খান।

সন্ধিক্ষণ
00 বলে জর্জ মুন্সে এবং ম্যাকমুলেন এর মধ্যে 00 রানের জুটি ছিল ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট। দুজনেই দ্রুত গতিতে রান তুলে ওমানকে ম্যাচ হারতে দেননি।

ম্যাচের যোদ্ধা
ম্যাচসেরা হন ওমানের ব্যাটসম্যান প্রতীক আথাওয়ালে। ম্যাচে ওপেন করতে গিয়ে ৫৪ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। তিনি 15 ওভার ক্রিজে থাকেন এবং এক প্রান্ত থেকে রান সংগ্রহ করতে থাকেন।

দুই দলেরই একাদশ খেলছেন
ওমান: নাসিম খুশি, প্রতীক আথাওয়ালে (উইকেট-রক্ষক), আকিব ইলিয়াস (অধিনায়ক), জিশান মাকসুদ, খালিদ কাইল, আয়ান খান, মেহরান খান, রফিউল্লাহ, শাকিল আহমেদ, কলিমুল্লাহ এবং বিলাল খান।

স্কটল্যান্ড: জর্জ মুন্সি, চার্লি টিয়ার, ব্র্যান্ডন ম্যাকমুলেন, রিচি বেরিংটন (সি), ম্যাথিউ ক্রস (উইকে), মাইকেল লিস্ক, ক্রিস গ্রিভস, মার্ক ওয়াট, ক্রিস্টোফার সোল, সাফিয়ান শরিফ এবং ব্র্যাড হুইল।

(Feed Source: bhaskarhindi.com)